Home / বিচিত্র খবর / ‘হিরোগিরি’র খেসারত দিল যুবক

‘হিরোগিরি’র খেসারত দিল যুবক

যমুনা নিউজ বিডি ঃ প্রেমিকার এবং তার বাড়ির লোকদের সামনে ‘হিরো’ সাজতে গিয়ে এমন মাশুল দিতে হবে, তা বোধহয় ভাবতে পারেননি ২৪ বছর বয়সী যুবকটি। আনন্দের সফরের মাঝেই তাই ঘটে গেল ভয়ংকর দুর্ঘটনা।

অকারণ ঝুঁকি নিতে গিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে চিরতরে বিচ্ছেদ হয়ে গেল প্রেমিকের।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর প্রদেশের লখনউয়ের চারবাগ স্টেশনে। একটি সর্বভারতীয় হিন্দি দৈনিকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত বৃহস্পতিবার নিজের প্রেমিকা এবং তার পরিবারের সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরের বৈষ্ণোদেবী মন্দির দর্শনে যাচ্ছিলেন ওই যুবক। সন্দীপ মৌর্য্য নামে ওই যুবক লখনউয়ের মান্ডির বাসিন্দা। সব মিলিয়ে সাতজন বেগমপুরা এক্সপ্রেসের জন্য চারবাগ স্টেশনে অপেক্ষা করছিলেন।

হঠাৎই স্টেশনের একটি প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা মালগাড়ির ছাদে উঠে পড়েন সন্দীপ। উদ্দেশ্য, প্রেমিকাকে ‘ইমপ্রেস’ করা। মালগাড়ির ছাদে উঠেই ক্ষান্ত হননি সন্দীপ। নিজের মোবাইলে একের পর এক সেলফি তুলতে থাকেন। সেলফি তুলতে তুলতে প্রেমিকা এবং তার পরিবারের সদস্যদের হাত নাড়তে থাকেন ওই যুবক। তখনই সন্দীপের একটি হাত আচমকা ওপরের হাই-টেনশন বিদ্যুতের তারে লেগে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তড়িদাহত হন ওই প্রেমিক। বিশ্রীভাবে পুড়ে যায় সন্দীপের হাত।

খবর পেয়ে ওই হাই-টেনশন লাইনে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। আরপিএফ কর্মীরা এসে আহত সন্দীপকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা ওই প্রেমিককে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার খবর পেয়ে সন্দীপের পরিবারের লোকজন হাসপাতালে এসে পৌঁছন। কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁরা।

ওই যুবকের প্রেমিকার মায়ের দাবি, মালগাড়ির ছাদে না ওঠার জন্য সন্দীপকে অনেকবার নিষেধ করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু, ওই যুবক তাতে কান দেননি। অভিযোগ, স্টেশনে বেশ কয়েকজন আরপিএফ কর্মী থাকলেও তাঁরাও সন্দীপকে আটকাননি। অকারণ ঝুঁকি এবং প্রেমিকার চোখে নিজেকে আরও একটু ‘আকর্ষণীয়’ করে তুলতে গিয়েই নিজের চরম বিপদ ডেকে আনলেন ওই প্রেমিক!
সূত্র : এবেলা

Check Also

পুতুল দিয়ে যৌন হেনস্তার বর্ণনা দিল শিশু

একটি পুতুল দিয়ে ‌যৌন নির্যাতনের ঘটনা বর্ণনা করতে বলা হলো এক ৫ বছরর শিশুকে। আর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Designed, Developed & Hosted by themekiller.com