Home / স্বাস্থ্যসেবা / গুণে ভরা পাতিলেবুর খোসা

গুণে ভরা পাতিলেবুর খোসা

লেবুর খোসা খুব পাতলা পাতলা করে কেটে নিন। লেবুর খোসায় চিনি মাখিয়ে রাখুন। পানি হালকা গরম করে তাতে ওই চিনি মেশানো লেবুর খোসা ও চা-পাতি দিন। ঠাণ্ডা হওয়া পর্যন্ত রেখে দিন। তৈরি লেবুর খোসার চা।

পাতিলেবুর রস বের করে নিয়ে খোসা ফেলে দিতেই অভ্যস্ত আমরা। জানেন কি মোটেই ফেলনা নয় এই খোসা।

রূপচর্চা থেকে ঘর পরিষ্কার প্রায় সব কাজেই ব্যবহার করা যায় পাতিলেবুর খোসা। কী কী কাজে আসে এই খোসা, তা জেনে নিন-

ঘর পরিষ্কার করতে

লেবুর খোসা কেটে ভিজিয়ে রাখুন ভিনিগারে। দু’-একদিন এভাবে রেখে দিন। ঘর মোছা, বাথরুমের মেঝে পরিষ্কার, দেওয়ালে লাগা দাগ তোলার কাজে ব্যবহার করুন এই মিশ্রণটি। গরম জলে ভ্যানিলা এসেন্স ও লেবুর খোসা মিশিয়ে এয়ার ফ্রেশনার হিসাবে ব্যাবহার করতে পারেন।

পিঁপড়ের যম

পিঁপড়ের উৎপাতে নাজেহাল আপনি? তাহলে ব্যবহার করে দেখুন লেবুর খোসা। পিঁপড়ে আপনার ঘরে ঢোকার সাহসই পাবে না। পাতিলেবুর খোসা ছোটো ছোটো টুকরোয় কেটে নিন। ছড়িয়ে দিন পিঁপড়ের বাসায়। যেখান থেকে পিঁপড়ে আপনার ঘরে ঢুকতে পারে সেখানেও ছড়িয়ে দিন লেবুর খোসা। এবার দেখুন জাদু। লেবুর গন্ধ পিঁপড়ে সহ্য করতে পারে না। তাছাড়া লেবুতে থাকে অ্যাসিড জাতীয় পদার্থ। কোনও পিঁপড়ের শুঁড়ে ওই অ্যাসিড লেগে গেলে তা অন্য পিঁপড়েদেরও আপনার বাড়ি থেকে দূরে রাখবে।

ত্বকের যত্নে

লেবুর খোসা শুকিয়ে গুড়ো করে নিন। অল্প পানি মিশিয়ে বানিয়ে ফেলুন পেস্ট। ঘষে নিন মুখে। ডেড সেল ও দাগছোপ তোলার স্ক্রাব হিসেবে দারুণ কাজ দেবে। ব্রণ-ফুসকুড়ি দূর করতে সরাসরি লেবুর খোসা ব্যবহার করতে পারেন মুখে। এর ব্যবহারে ত্বক হয়ে উঠবে নরম, উজ্জ্বল আর প্রাণবন্ত।

ঝকঝকে দাঁত ও নখ পেতে

লেবুতে থাকে একধরনের অ্যাসিড। ওই অ্যাসিড দাঁত ও নখ পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। হালকা গরম জলে ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন আপনার হাত। তারপর নখে ঘষে নিন লেবুর খোসা। নখ হয়ে উঠবে সুন্দর। দাঁতেও ঘষে দেখুন পাতিলেবুর খোসা, হাতে হাতে ফল পাবেন।

Check Also

ইফতারে বাড়তি পুষ্টি স্ট্রবেরিতে

পুষ্টির আধার অনেকেই বলে, ফলের রাজা আম। আর রানি বলা হয় কিন্তু স্ট্রবেরিকে। দেখতে অসাধারণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Designed, Developed & Hosted by themekiller.com